আমার কবিতারা- সরোজ কুমার দে

Updated: Aug 9, 2019

অবসর জীবন

আজব অনুভুতি এই অবসর জীবন কোন দায় নেই, সুধু গুনে যাও ক্ষণ। অতীত ছিল ভাল লড়াকু প্রাণ মন সময় কেটে যেত ছিলনাকো ধন। শুধু এগিয়ে চলা ছিল না পথের শেষ আজ পিছন ফিরে খুঁজি তারই রেশ। ছিল কত স্বজন বন্ধু আর আপন জন সদা ব্যস্ত আপন মাঝে আমি কে এখন। আছি ভাল তাই তো কেউ রাখে না মনে পীড়িত হলে পরে খবর লয় যে ফোনে। এটাই এখন হয়েছে রীতি আধুনিক যুগে মেনে নিয়ে, সকল সুখ পাই হৃদ মাঝে।


১লা বৈশাখ


আকাশ যখন লাল হয়ে ওঠে ঐ দিগন্ত কিনারে তখন আসে নতুন প্রভাত জাগিয়ে দিতে মোরে আড়মোড়া ভেঙে কান খুলে শুনি পাখির কুজন চোখ মেলি, লাগে বাতাস, আছে খোলা বাতায়ন দিন শুরু হল কাজের লাগি, সময় কারুর নাই আমি বসে তাই কবিতা রচিয়া অবসরটা কাটাই নাইবা কেউ করুক সংগ্রহ মোর এ অলস রচনা কবি হতে তো চাইনা আমি নেই কোনও বাসনা


জনমের পর

জনমের পর কর্ম করে কাটাই সারাটা জীবন সুখ দুঃখ সয়ে সবার কেটে যায় দিন ক্ষণ। তার মাঝে অনুযোগ কত, কি যে পেলাম না আর যা পেয়েছি, তার হিসেব কখনো করি না। পরশ্রী কাতর আমরা নিহারি, অপরের পানে নিজের ওজন বুঝে চলা, শিখবো বা কেমনে ঈশ্বরবাদী হন যারা সুধু ভজন পূজনে মগন দারিদ্রের দুঃখ বোঝার সময় তার হয় কখন? জানিইবা মোরা শুনেওছি যে, নরই নারায়ণ বৃথা খুঁজে ফিরি তারে মন্দিরে, ছাড়িয়া স্বজন। প্রভাত শেষে আঁধার কাটবে আসবে কি সুদিন, সেদিন পানে চেয়ে থেকোনা কাল ছিল সেদিন।


সরোজ কুমার দে


17 views0 comments
  • download (8)

Copyright © KolkataPanda.com. All rights reserved.