Website Cookies বলতে কি বোঝায়?

কোনও ওয়েবসাইটে ঢোকার পর অনেক সময় পছন্দের ভাষা সিলেক্ট করার অপশন দেয়। ধরা যাক বাংলা আর ইংরেজির মধ্যে আপনি ইংরেজি ভাষাটি নির্বাচন করলেন। এরপর সেই ওয়েবসাইট ক্রিয়েটর চাইলে "Cookie" নামক ফাইলের মধ্যে আপনার নির্বাচন করা তথ্যটি রেখে দিতে পারে। পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনি ওই ওয়েবসাইটে পুনরায় প্রবেশ করলে আপনাকে আবার ভাষা নির্বাচন করতে হবে না এবং আপনি ইংরেজিতেই কন্টেন্টগুলি দেখতে পাবেন। কুকিজ ফাইল গুলো আপনার ডিভাইসের মধ্যেই স্টোর করা হয়। এটি একটি মাত্র উদাহরণ, তবে এমন অনেক কাজে কুকিজের ব্যবহার করা হয়।


Cookies-এর ভিতর কি ধরনের তথ্য স্টোর থাকবে, ওয়েবসাইটের ডেভলপাররা নির্ধারন করেন। প্রতিটি ওয়েবসাইট আলাদা আলাদা কুকিজ ব্যবহার করে। মূলত বিজ্ঞাপন ডিসপ্লের কাজে কুকিজের ব্যবহার করা হয়। কুকি ফাইল আপনার যেকোনো ধরনের তথ্য স্টোর করে রাখতে পারে। সুতরাং ডেভলপার চাইলে কুকিগুলো ভালো কাজেও ব্যবহার করতে পারেন আবার খারাপ কাজেও ব্যবহার করতে পারেন।


কুকিজ আপনার ডিভাইসের মধ্যেই থাকে, ফলে ডিভাইস মেমরির অনেকটা জায়গা দখল করে রাখে। এই সমস্যা সমাধানের জন্য ডেভলপাররা কুকিজগুলি নিজেদের সার্ভারে রাখা শুরু করে। কিন্তু এখন প্রশ্ন হল অনেকজন ইউজারের মধ্যে কিভাবে আপনার কুকিজটা আলাদা করা যায়? সেইকারণে ওয়েবসাইতের ডেভলপাররা আপনার কুকিজের সাথে একটি ইউনিক আইডি যুক্ত করে দেয় যাতে কুকিজ ফাইলগুলো তাদের সার্ভারে থাকলেও সেগুলো যে আপনার ফাইল সেটি বোঝা যায়।


Cookies কিভাবে কাজ করে ?


আপনি যখন ইন্টারনেট ব্রাউজারে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করেন সেইসময় ওয়েবসাইটগুলি কিছু ফাইল আপনার ব্রাউজারের ক্যাশ মেমরিতে জমা করে রাখে। ব্রাউজ করার সময় সার্ভার ও ক্লায়েন্ট এর মধ্যে ডাটা এক্সচেঞ্জ হয়, এই ডান ইনফরফেশনগুলি হল কুকিজ। কুকিজে খুব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। যেমন ধরুন, facebook কিংবা twitter একবার login করা হলে বার বার ইমেইল-পাসওয়ার্ড দিয়ে login করার প্রয়োজন হয় না। আপনি যখন প্রথমবার login করেন তখন সেটির একটি কুকিজ তৈরি হয়ে যায় যেখানে লগিন তথ্য স্টোর হয়ে যায়। পরে আপনি যখন আপনার facebook/twitter একাউন্ট-এ প্রবেশ করেন তখন ব্রাউজারে স্টোর হয়ে থাকা কুকিজটি সার্ভারে চলে যায়। কুকিজে login সেশনের তথ্য থাকায় পুনরায় ই-মেইল পাসওয়ার্ড দিতে হয় না।



E-Commerce-ক্ষেত্রে কুকিজের ব্যবহার


E-Commerce সাইটে ঢুকে কিছু প্রোডাক্ট সার্চ করলে অথবা উইশলিস্টে রেখে দিলে সমস্ত কিছু কুকিজে স্টোর হয়ে যায়। ব্যবহারকারীর সার্চের এই তথ্যের উপর ভিত্তি করে সাইটগুলো একই ধরনের অন্যান্য পন্যের আপডেট পাঠাতে থাকে। এমনকি আপনি cart বা wishlist-এ কোনোও পন্য রেখে login না করে সাইট থেকে বেরিয়ে গেলেও পরবর্তী কালে সেগুলি দেখতে পাবেন, যদি কুকিজ ডিলিট না হয়ে থাকে।


অর্থাৎ কুকিজ মুলত ইউজার এক্সপেরিয়েন্স উন্নত করার জন্য ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে কিছু ঝুঁকিও থেকে যায়। অনেকসময় বেশকিছু থার্ড পার্টি ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়াই Cookies-এর মধ্যে থাকা তথ্যগুলি ব্যবহার করে থাকে, ফলে আপনার ব্যক্তিগত অনেক তথ্যই বেরিয়ে যেতে পারে। আপনি কোন সাইট বেশি ভিজিট করছেন, কোন ধরনের পোস্ট বেশি পড়ছেন, থার্ড পার্টি সেইসমস্ত তথ্য সংগ্রহ করে বিজ্ঞাপনদাতাদের পাঠায়। আর বিজ্ঞাপনদাতারা সেই তথ্যের উপর ভিত্তি করে আপনার পছন্দ অনুযায়ী বিজ্ঞাপন দেখায়।


সেইকারণে chrome://settings/content/cookies?search=cookies গিয়ে allow sites to read and save cookie data(recommended) অপশনটি ব্লক করে দিতে পারেন। এছাড়াও কিছুদিন অন্তর আপনার ইন্টারনেট ব্রাউজারের History অপশন-এ গিয়ে clear browsing data থেকে clear data করুন। পুরোপুরি না হলেও এরফলে অনেকটাই সেফ থাকতে পারবেন।


What Hat SEO-Black Hat SEO কি?

40 views0 comments
  • download (8)

Copyright © KolkataPanda.com. All rights reserved.